আজকের বাংলা তারিখ
  • আজ বুধবার, ২৪শে জুলাই, ২০২৪ ইং
  • ৮ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল)
  • ১৭ই মুহররম, ১৪৪৬ হিজরী
  • এখন সময়, রাত ১২:০১

জামিন পেলেন ১৬ বছর ধরে বিনা বিচারে আটক শিপন

একটি হত্যা মামলায় ১৬ বছর ধরে বিনা বিচারে কারাগারে আটক শিপনকে জামিন দিয়েছে হাইকোর্ট। বিচারিক আদালতে মামলাটির রায় ঘোষণা না করা পর্যন্ত এই জামিন দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে দুই মাসের মধ্যে মামলাটি নিষ্পত্তি করতে ঢাকার অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও জে ডি এম হাসানের ডিভিশন বেঞ্চ এই আদেশ দেয়। এর আগে হাইকোর্টের নির্দেশে শিপনকে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। তার উপস্থিতিতে শুনানি গ্রহণ করে আদালত এই আদেশ দেয়।

বেঞ্চের জ্যেষ্ঠ বিচারক বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম বলেন, একটি মামলায় একজন আসামির ১৬ বছর ধরে বিনা বিচারে আটক থাকা রাষ্ট্রেরজন্য লজ্জাজনক। বিচার বিভাগও এই লজ্জা এড়াড়ে পারে না। মামলাটি দ্রুত নিষ্পত্তি হলে হাতে শিপনকে এতোদিন কারাগারে আটক থাকতে হতো না। রাষ্ট্রের উচিত মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির উদ্যোগ নেয়া। কারণ মামলাটি দায়েরের পর ২২ বছর পেরিয়ে গেছে কিন্তু আজ অবধি নিষ্পত্তি হয়নি।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ১৯৯৪ সালে পুরান ঢাকার সুত্রাপুরে দুই মহল্লার মধ্যে মারামারিতে মাহতাব নামে এক ব্যক্তি খুন হন। এ খুনের ঘটনায় মো.জাবেদ বাদি হয়ে সূত্রাপুর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় দুই নম্বর আসামি করা হয় মো.শিপনকে। এজাহারে তার পিতার নাম ছিলো অজ্ঞাত। পরে ১৯৯৫ সালে দেয়া অভিযোগপত্রে বাবার নাম উল্লেখ করা হয় মো.রফিক। ঠিকানা উল্লেখ করা হয় ৫৯, গোয়ালঘটা লেন, সূত্রাপুর।

পরবর্তীতে ২০০০ সালের ৭ নভেম্বর শিপনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর থেকে সে কাশিমপুর কারাগারে বন্দি রয়েছেন। চার্জশীট দাখিলের ৫ বছর পর ২০০১ সালে মামলাটি বিচারের জন্য প্রস্তুত হয়। বর্তমানে ঢাকার অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতে মামলাটি বিচারাধীন। অভিযোগপত্র দাখিলের পর এ পর্যন্ত সাক্ষী নেয়া হয়েছে দুজনের। মোট সাক্ষী রয়েছেন ১২ জন।

মামলার বিষয়বস্তু নিয়ে সম্প্রতি একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে অনুসন্ধানীমূলক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রকাশিত প্রতিবেদনটি আদালতে উপস্থাপন করলে গত ৩০ অক্টোবর হাইকোর্ট শিপনকে আদালতের হাজির করার জন্য নির্দেশ দেয়। একই সঙ্গে তাকে কেন জামিন দেয়া হবে না এই মর্মে রুল জারি করে। আজ এই বিষয়ে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।

শুনানিকালে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মো. শহীদুল ইসলাম খান এবং প্রতিবেদন উপস্থাপনাকারী আইনজীবী কুমার দেবলু দে উপস্থিত ছিলেন।

MY SOFT IT Wordpress Plugin Development

Covid 19 latest update

# Cases Deaths Recovered
World 0 0 0
Bangladesh 0 0 0
Data Source: worldometers.info

Related News

সানির ব্যাটারি বিপ্লব

সানি সানওয়ার কাজ করেন নবায়নযোগ্য বিদ্যুৎ নিয়ে। স্বপ্ন দেখেন কার্বন নিঃসরণমুক্ত বিদ্যুৎ–ব্যবস্থার। ...

বিস্তারিত

অনলাইনে ব্যবসা করতে চান?

ধরুন আপনার অসাধারণ কিছু প্রোডাক্ট আছে। খুব সুন্দর করে কন্টেন্ট তৈরী করে নিজের ওয়েবসাইট সাজিয়েছেন। পণ্যের ছবি ...

বিস্তারিত

হলোগ্রাফি এবং পদার্থবিজ্ঞানের মেসি

আজকে যে বিষয়টা দিয়ে আলোচনা শুরু করতে চাই, সেই ধারণাটার জন্ম স্ট্রিং তত্ত্ব থেকে। কিন্তু মজার ব্যাপার হলো, এর ...

বিস্তারিত

ফেসবুক ছাড়ার বার্ষিক গড় মূল্য ১ হাজার ডলার

ফেসবুক ব্যবহারের কারণে মানসিক স্বাস্থ্যের ক্ষতির বিষয়টি প্রায় সবাই জানেন। এর সঙ্গে ব্যক্তিগত তথ্যের ...

বিস্তারিত